Site icon মুক্তির কণ্ঠ । Muktir Kantho

সরাইলে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন। মুক্তির কণ্ঠ

 

মুক্তির কণ্ঠ ডেস্কঃ
‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই” এ প্রতিপাদ্যকে লালন করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার কুট্টাপড়া আলহাজ্ব আজদু মিয়া স্মৃতি গণগ্রন্থাগারের বৃহস্পতিবার সাড়ে বারটায় মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও ১৭ মার্চ, ২৬মার্চ রচনা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ এবং বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসাবে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুল হক মৃদুল। আলহাজ্ব আজদু মিয়া স্মৃতি গণগ্রন্থাগারের উপদেষ্টা জহিরুল ইসলাম মন মিয়ার সভাপতিত্বে গণ-গ্রন্থাগারের সভাপতি মোহাম্মদ শফিকুর রহমান স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

গণ-গ্রন্থাগারের সদস্য আলমগীর মিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সরাইল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আসলাম হোসেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহিদ খালিদ জামিল খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম,উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা সংসদ সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোহাম্মদ মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ মোছন, সরাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি আইয়ুবখান, উপজেলা উদিচী শিল্পী গোষ্ঠি সভাপতি মোজাম্মেল পাঠান প্রমূখ।

প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুল হক মৃদুল বলেন, আলহাজ্ব আজদু মিয়া স্মৃতি গণগ্রন্থাগারের স্বাধীনতা বীরসেনানীরা রয়েছে ও মুক্তিযোদ্ধাদের কাহিনী পড়বে তাদের অবদান সম্পর্কে জানবে। আমাদের সরাইলে অনেক প্রাচীণ ঐতিহ্য রয়েছে ঈশা খাঁর রাজধানী ছিল। সরাইলে অনেক জ্ঞাণী গুণী মানুষের জম্ম হয়েছে সে সম্পর্কে জানতে বই পড়তে হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রত্যেক মানুষকে লেখাপড়া শিখতে হবে। অশিক্ষিত মানুষ মধ্যে সভ্যতার আলো নেই। যে জাতি পৃথিবীর শ্রেষ্টত্বের আসনের সে জাতি লেখাপড়া জ্ঞান বিজ্ঞানে অর্থনীতিতে শ্রেষ্ঠত্ব ছিলেন। পড়ার চাহিদা সভার মধ্যে থাকার অভ্যাস করতে হবে এই পাঠাগারে পাঠকদের বই পড়ে মহুরিত করে তুলতে হবে।

Exit mobile version